মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
পাতা

কার্যবিবরণী ও গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত

গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার

উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কার্যালয়

সদর, কক্সবাজার|

 

 

উপজেলা পরিষদের মাসিক সভার কার্যবিবরণী 

 

সভাপতি              ঃ         বেগম নাছিমা আকতার

মহিলা ভাইস-চেয়ারম্যান, উপজেলা পরিষদ, সদর, কক্সবাজার

সভার স্থান                        ঃ         উপজেলা পরিষদ মিলনায়তন

সভার তারিখ ও সময়            ঃ         ০৩/০৬/২০১৩, বেলা ১১:৩০ টা

সভার উপস্থিতি      ঃ         পরিশিষ্ট-‘‘ক’’তে সন্নিবেশিত।

 

সভাপতি উপস্থিত সকলকে স্বাগত জানিয়ে সভার কাজ আরম্ভ করেন। উপজেলা চেয়ারম্যান অনুপস্থিত থাকায় উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান অদ্য সভার সভাপতিত্ব করেন। বিগত সভার কার্যবিবরণীর উপর আলোচনার পর কোন সংশোধন না থাকায় তা সর্বসম্মতিক্রমে দৃঢ়করণ করা হয়। অতপর: সভাপতি বিভাগওয়ারী উন্নয়ন চিত্র/ সমস্যা উত্থাপন করতে সংশিস্নষ্ট কর্মকর্তাগণকে অনুরোধ জানান।

আলোচনা

সিদ্ধামত্ম

বাস্তবায়ন

উপজেলা নির্বাহী অফিসার বলেন, স্থানীয় সরকার বিভাগের ২৩/০৪/২০১৩ তারিখের ০৬.০৪৬.০১৮.০০.০০.০৩৮.২০১২-৪৩০ নং স্মারকে উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও ভাইস চেয়ারম্যানগণকে নিয়মিত কর্মস্থলে অবস্থান করে সরকারের বিভিন্ন উন্নয়ন প্রকল্প তদারকি, বাসত্মবায়ন ও আইন শৃংখলা রÿায় ভুমিকা পালন করতে নির্দেশনা প্রদান করেছেন মর্মে সভাকে অবহিত করেন। তাছাড়াও তিনি সম্প্রতি সৃষ্ট প্রাকৃতিক দূর্যোগ ‘মহাসেন’ মোকাবেলায় সার্বিক সহযোগিতা করার জন্য বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তা/ কর্মচারীগণের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।

 

উপজেলা প্রকৌশলী জানান, ২০১২-২০১৩ অর্থ বৎসরে বার্ষিক উন্নয়ন সহায়ক তহবিল (এডিপি) বরাদ্দকৃত অর্থের পরিমান- ৬৮,৬৪,০০০.০০ টাকা। এ পর্যমত্ম প্রাপ্ত বরাদ্দের পরিমান (১ম ২য় ও ৩য় কিসিত্ম বাবদ) ৫১,৪৮,০০০/= টাকা। গৃহীত প্রকল্প সংখ্যা= ৫৫টি (দরপত্রের মাধ্যমে ৪৫টি এবং প্রকল্প কমিটির মাধ্যমে ১০টি প্রকল্প)। সমাপ্তকৃত প্রকল্পের সংখ্যা- ১৫টি, গড় অগ্রগতি= ৫৫% অবশিষ্ট প্রকল্পের কাজ চলমান রয়েছে। এ পর্যমত্ম ব্যয়িত অর্থের পরিমান- ১২,৭৬,২৭৫/-টাকা।

এলজিইডির আওতায় বাসত্মবায়নাধীন প্রাথমিক বিদ্যালয় সংক্রামত্ম পর্যালোচনাঃ

ক) উপজেলা প্রকৌশলী বলেন, তৃতীয় প্রাথমিক শিক্ষা উন্নয়ন কর্মসূচী (পিইডিপি-৩) এর আওতায়- ৩৫,৯১,৩৪৫.২৫ টাকা ব্যয়ে মুক্তারকুল সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় উদ্ধমুখী শ্রেনীকক্ষ সম্প্রসারন কাজ চলমান। সম্পাদিত কাজের বর্তমান অগ্রগতি ৭৫% এবং কাজের মান সমেত্মাষজনক। এছাড়া একই প্রকল্পের আওতায়- ৬,৩৪,৮৭৬.০১ টাকা ব্যয়ে খুরম্নস্কুল শামিত্ম নিকেতন রেজিঃ প্রাথমিক বিদ্যালয়, দক্ষিন লরাবাগ জমিলিয়া সর: প্রা: বিদ্যালয় ও পশ্চিম গজালিয়া কমিউনিটি প্রা: বিদ্যালয় মেরামত কাজ চলমান রয়েছে। সম্পাদিত কাজের বর্তমান অগ্রগতি ৮৫% এবং কাজের মান সমেত্মাষজনক ।

খ) সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় পুনঃনির্মাণ ও সংস্কার প্রকল্প (২য় পর্যায়) এর আওতায় ৪৫,৩১,৫০০/-টাকা ব্যয়ে   সাহিত্যিকা মডেল সরকারী বিদ্যালয় পুনঃনির্মাণ, ৩৫,২৪,৫০০/-টাকা ব্যয়ে পশ্চিম চৌফলদন্ডী সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় পুনঃনির্মাণ কাজ ১০০% সমাপ্ত হয়েছে এবং কাজের মান সমেত্মাষজনক । এছাড়া একই প্রকল্পের আওতায় ৫৪,৫৫,৫৪৫.৭৫ টাকা ব্যয়ে ঈদগাঁও সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় পুনঃনির্মাণ কাজ চলমান। সম্পাদিত কাজের বর্তমান অগ্রগতি ৬০% এবং কাজের মান সমেত্মাষজনক ।

গ) ‘‘ বিদ্যালয়বিহীন এলাকায় ১৫০০ প্রাথমিক বিদ্যালয় স্থাপন’’ শীর্ষক প্রকল্পের আওতায় দরিয়া নগর বড়ছড়া, পশ্চিম গোমাতলী চরপাড়া, কাঠালিয়া মুড়া, জলসিড়ি (আশ্রয়নপ্রকল্প) এ বিদ্যালয় ভবন নির্মানের অনুমোদন পাওয়া যায়। প্রতিটি বিদ্যালয়ের প্রাক্কলিত ব্যয় ৫০,৪৯,০০০/-টাকা। পশ্চিম গোমাতলী চরপাড়া বাদে বাকী ৩টির জায়গা অদ্যাবধি পাওয়া না যাওয়ায় সমেত্মাষজনক কাজ অনিশ্চিত হয়ে পড়েছে। জায়গা সমস্যা সমাধানের জন্য উপজেলা নির্বাহী অফিসার মহোদয়ের সদয় দৃষ্টি কামনা করছি।

৩) Need basedভিত্তিতে সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় মেরামত ও  সংস্কার প্রকল্পের আওতায় ১,৪১,৪৫৫/- টাকা ব্যয়ে কস্ত্তরাঘাট সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় মেরামত, ১,২৪,২৪০.০৫ টাকা ব্যয়ে বিমান বন্দর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় মেরামত, ১,৩৪,১৬২.৮০ টাকা ব্যয়ে কলাতলী সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় মেরামত ১,৩৮,১৮৯.৮৫ টাকা ব্যয়ে ইউসুফেরখীল সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় মেরামত ও ১,৩৭,২০১.৮৫ টাকা ব্যয়ে পূর্ব খরম্নলিয়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় মেরামত কাজ ১০০% সমাপ্ত হয়েছে  এবং কাজের মান সমেত্মাষজনক ।  

কক্সবাজার সদর উপজেলার  ইউনিয়ন হতে  প্রাপ্ত  হাট-বাজার উন্নয়নের  জন্য নিমণমতে প্রকল্প তালিকা পাওয়া গেছে। প্রকল্পগুলো যাচাই-বাছাই করা হয়। 

ইসলামপুর

১। ইসলামপুর বাজারের চিটাগাং হোটেল হতে কালুর বাড়ী এবং আনসার উলস্নার দোকান        হতে আহমদ হোসেনের বাড়ী পর্যমত্ম ব্রীক সলিং দ্বারা উন্নয়ন প্রকল্প।

২। ইসলামপুর বাজারের দÿÿন পার্শ্ব  হয়ে কমিনিটি ক্লিনিকের পার্শ্বে গাইড ওয়াল নির্মাণ

৩। ইসলামপুর    বাজারের পশ্চিম পার্শেব ড্রেইন নির্মাণ প্রকল্প ।

৪। ইসলামপুর বাজরের মসজিদের পূর্ব পার্শ্বে গাইড ওয়াল  নির্মাণ।

৫। ইসলামপুর বাজারে ফ্লাট সলিং দ্বারা উন্নয়ন।

 

 

 

 

 

পাতা-২

আলোচনা

সিদ্ধামত্ম

বাস্তবায়ন

ভারম্নয়াখালী

১। ভারম্নয়াখালী বাজারের দÿÿণ অংশে পানি চলাচলের ড্রেইন নির্মাণ প্রকল্প।

২। ভারম্নয়াখালী বাজারস্থ আনুর দোকান এর উত্তর পার্শেব ড্রেইন নির্মাণ প্রকল্প।

৩। ভারম্নয়াখালী বাজারের  দুটি পুরাতন সেড সংস্কার।

পোকখালী

১। পোকখালী মুসলিম বাজার সংলগ্ন রাসত্মা এইচ বি বি দ্বারা উন্নয়ন এবং গাইড ওয়াল নির্মাণ

২। পোকখালী ইউনিয়ন পরিষদ হতে মুসলিম বাজার পর্যমত্ম ড্রেইন নির্মান।

৩। মুসলিম বাজার হতে কবির চেয়ারম্যানের বাড়ী পর্যমত্ম ব্রিক সলিং দ্বারা উন্নয়ণ।

ইসলামাবাদ

১।  ইসলামাবাদ ইউনিয়নের ঈদগাঁও বাজার সংলগ্ন ইসলামাবাদ অংশে বশির 

    চৌকিদারের বাড়ীর পার্শ্বে রাসত্মা নির্মান।

২। ঈদগাঁও বাজার সংলগ্ন ভাংগন প্রতিরোধে প্যালাসাইডিং প্রকল্প।

৩। ইসলামাবাদ বাঁশ ঘাটা বাজার হতে আলতাজের বাড়ী পর্যমত্ম রাসত্মার ভাংগা মেরামত।

পি.এম খালী

জুমছড়ি বাজার সংলগ্ন উত্তরদিকে সুলাইমানের বাড়ী পর্যমত্ম রাসত্মা নির্মাণ প্রকল্প।

ঈদগাও

১। জনাব মরহুম এ.জেড.এম শাহজাহান চৌধুরী লুতুমিয়ার বাড়ীর গেইট হতে আবদুর রহিমের বাড়ী পর্যমত্ম ড্রেন নির্মাণ প্রকল্প।

২। ঈদগাঁও বাসষ্টেশন বাজার সংলগ্ন রাসত্মার পার্শ্বে স্পার নির্মাণ প্রকল্প।

ঝিলংজা

১। শুকনাছড়ি প্রধান সড়কের মামুনের দোকান থেকে মসজিদ পর্যমত্ম রাসত্মা ব্রীক সলিং দ্বারা উন্নয়ন

২। উপজেলা বাজারস্থ কক্সবাজার কেন্দ্রীয় বাসটার্মিনাল কবরস্থান সংলগ্ন গাইড ওয়াল নির্মাণ

৩। লিংকরোড বাজারস্থ মহুরীপাড়া আরকান সড়ক হতে মকবুল আহাং এর বাড়ী পর্যমত্ম ব্রীক সলিং দ্বারা উন্নয়ন।

৪। লিংকরোড বাজারস্থ  মহুরীপাড়া কোনার পাড়া সংযোগ সড়ক ব্রীক সলিং দ্বারা উন্নয়ন।

৫। উপজেলা বাজারস্থ দÿÿণ হাজীপাড়ার সামশুর বাড়ী হতে হালিম মাস্টারের বাড়ী পর্যমত্ম রাসত্মার ব্রীক সলিং দ্বারা উন্নয়ন

৬। লিংকরোড বাজারস্থ  চান্দের পাড়া গুরা মিয়ার বাড়ী হতে সলিমের বাড়ী পর্যমত্ম গাইড ওয়াল নির্মাণ

৭। উপজেলা বাজারস্থ দÿÿণ ডিককুল মসজিদ হতে শাহ মজিদিয়া কমপেস্নক্স পর্যমত্ম রাসত্মা ব্রীক সলিংদ্বারা উন্নয়ন।

৮। বাংলা বাজারস্থ পূর্ব মোক্তারকুল ইসহাক সও দোকান হতে মনির আহমদের বাড়ি পর্যমত্ম রাসত্মা ব্রিক সলিং দ্বারা উন্নয়ন।

৯। বাংলা বাজারস্থ মকবুল সওদাগর পাড়া রাসত্মার দÿÿণে বাকি অংশ ব্রীক সলিং দ্বারা উন্নয়ন

১০। উপজেলা বাজারস্থ জানারঘোনা আব্দু সালামের বাড়ী ভুটো বাড়ী পযমর্ত্ম ব্রীক সলিং দ্বারা উন্নয়ন

চৌফলদন্ডী

১। চৌফলদন্ডী  বাজার সংলগ্ন পশ্চিমে গলিতে চলাচলের রাসত্মা এইচবিবি দ্বারা উন্নয়ন।

২। চৌফলদন্ডী বাজারে উত্তর পার্শ্বে ড্রেইন নির্মাণ- ১ম অংশ, ২য় অংশ ও ৩য় অংশ

৩। চৌফলদন্ডী বাজারের পশ্চিম পার্শ্বে গভীর নলকুপ স্থাপন।

জালালাবাদ

১। ঈদগাও বাজারের মাছুয়া পাড়ার রাসত্মা উচুকরণ।

২। ঈদগাও বাজারের পানি নিস্কাসনের ড্রেইন শফির বাড়ী হতে মন  জুরের দোকান পর্যমত্ম ড্রেইন নির্মাণ

৩। ঈদগাও বাজার হতে সওদাগর পাড়া রাসত্মা উচুকরণ প্রকল্প।

৪। ঈদগাও বাজারের সিরাজ মাষ্টারের বাড়ীর পার্শেব বন্যা নিয়ন্ত্রন গাইড ওয়াল নির্মান

৫।&ঈদগাও বাজারের মাছ বাজারের রাসত্মা উচুকরণ প্রকল্প।

খুরম্নশকুল

খুরম্নশকুল নতুন বাজারে ড্রেইন নির্মাণ।

খুরম্নশকুল টাইম বাজারের পশ্চিম পার্শ্বে ড্রেইন নির্মাণ।

 

গৃহীত প্রকল্প সমূহের মধ্যে অসমাপ্ত  প্রকল্পের কার্যক্রম জরম্নরী ভিত্তিতে  ১০০% সম্পন্ন করার সিদ্ধামত্ম গৃহীত হয়।

 

 

 

 

 

ইউপি চেয়ারম্যান কতৃক দাখিলীয় প্রকল্প সমূহ সরেজমিনে পরিদর্শন পূর্বক  প্রাক্কলন তৈরী করার সিদ্ধামত্ম গৃহীত হয়।

 

উপজেলা প্রকৌশলী

 

 

 

 

 

 

 

উপজেলা প্রকৈাশলী

উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা বলেন, চলতি ২০১২-১৩ মৌসুমে ৭,১৫৫ হেক্টর জমিতে বোরে ফসলের আবাদ হয়েছে। সার ও অন্যান্য কৃষি  উপকরণ সময়মত কৃষক পাওয়ায় ফসলের ভালো ফলনের আশা করা হচ্ছে। তিনি সভাকে অবহিত করেন যে, আগামী মাসের ২২-২৪ মে ২০১৩ ইং তারিখ জেলা ও উপজেলা পর্যায়ে কৃষি প্রযুক্তি ও  বীজ মেলার সম্ভাব্য তারিখ নির্ধারণ করা হয়েছে। তিনি উক্ত মেলায় সকলকে আমন্ত্রণ জানান। জেলা/ উপজেলা প্রযুক্তি ও বীজ মেলা পাবলিক লাইব্রেরীর প্রাঙ্গনে অনুষ্ঠিত হবে। তিনি আরো বলেন যে, বর্তমানে সার ও কৃষি উপজকরনের সরবরাহ ও মূল্য স্বাভাবিক রয়েছে।  বিসিআইসি সারের ডিলার মেসার্স সিকদার এন্টারপ্রাইজ প্রো: গিয়াস উদ্দিন, ভারম্নয়াখালী তাঁর দোকান আনুর দোকান, ভারম্নয়াখালী হতে জনাব ফিরোজ আহমদ গং এর দোকান, ভারম্নয়াখালী হাইস্কুল স্টেশন, সাং- করিম সিকদার পাড়া, ভারম্নয়াখালীতে স্থানামত্মরের আবেদন করেন। গত ১০-০৪-১২ তারিখের জেলা সার ও বীজ মনিটরিং কমিটির সভার সিদ্ধামত্ম মোতাবেক, সদর উপজেলা ঝিলংজা ইউনিয়নে অতিরিক্ত সার ডিলার নিয়োগের প্রয়োজনীয়তা আছে কিনা, তৎ বিষয়ে সংশিস্নষ্ট এসএএও এর মাধ্যমে প্রতিবেদন দাখিল করেন।

ঝিলংজা ইউনিয়নে অতিরিক্ত সার ডিলার নিয়োগের প্রয়োজনীয়তা আছে কিনা, তৎ বিষয়ে সংশিস্নষ্ট এসএএও এর মাধ্যমে প্রতিবেদন দাখিল প্রতিবেদন জেলা কমিটির বরাবরে প্রেরণের সিদ্ধামত্ম গৃহীত হয়।

উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা

উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা অফিসার বলেন,  মার্চ-২০১৩  মাসের রিপোর্ট অনুযায়ী অত্র উপজেলায় সÿম দম্পতির সংখ্যা- ৭২,২১৫ জন, মোট পদ্ধতি গ্রহণকারী- ৫১,৯৯৭ জন, এর মধ্যে খাবার বড়ি গ্রহণকারী- ২৪,২৪৫ জন, কনডম- ৫,৭৬৭ জন, ইনজেকশন- ১২,০৯৬ জন, আই, ইউ, ডি- ২,৪৬৭ জন, ইম্প্র্যান্ট- ২,৭৭৮ জন,স্থায়ী পদ্ধতি (পুরম্নষ)-২,১০০ জন, স্থায়ী পদ্ধতি (মহিলা )-২৫৪৪ জন, মার্চ-১৩ মাসের নতুন গ্রহণকারীর সংখ্যা; খাবার বড়ি-২৩৭ জন, কনডম-১০৫, ইনজেকশন-১৯৩ জন, আইইউডি-৬২ জন, ইমপস্ন্যান্ট- ৪৯জন, স্থায়ী পদ্ধতি পুরম্নষ- ০৮ জন, স্থায়ী পদ্ধতি মহিলা- ৩৩ জন, এছাড়া গর্ভবতী ও  ০- ২৩ মাস বয়সী শিশুদের বিষয়ে সচেতনতা তৈরী ও পুষ্টি পাউতার বিতরনের কার্যক্রম চলমান আছে।

সভায় বিশদ আলোচনামেত্ম উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা দপ্তরের চলমান কার্যক্রম অব্যাহত রাখার সিদ্ধামত্ম গৃহীত হয়।

উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা

উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা বলেন, জেলেদের নিবন্ধন ও পরিচয়পত্র প্রদান প্রকল্পের মাধ্যমে বিগত অর্থ বৎসরে সদর উপজেলা, পৌরসভা  এবং চারটি ইউনিয়নে জেলেদের উদ্ধুদ্ধকরণ বিষয়ক সভা অনুষ্ঠিত হয়। অবশিষ্ট ৬টি ইউনিয়নে শিঘ্রই সভা উদ্ধুদ্ধকরণ সভার আয়োজন করা হবে। এ ব্যাপারে তিনি ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যানদের সার্বিক সহযোগিতা কামনা করেন।এখানে উলেস্নখ্য যে, বাংলাদেশ  মেরিন ফিশারীজ ক্যাপাসিটি বিল্ডিং প্রকল্প এর আওতায় প্রতি মাসে ৮ দিন বিএফডিসি  ঘাট  ও নাজিরার টেক পয়েন্টে সমুদ্র আহোরিত মাছের নমুনায়ন যথারীতি চলছে। তাছাড়া বিভাগের অন্যন্য কার্যক্রম সূষ্ঠু ভাবে পরিচালিত হচ্ছে মর্মে তিনি উলেস্নখ করেন।

বিসত্মারিত আলোচনামেত্ম  বিএফডিসি  ঘাট  ও নাজিরার টেক পয়েন্টে সমুদ্র আহোরিত মাছের নমুনায়ন কার্যক্রম সুষ্ঠুভাবে  পরিচালনা করার সিদ্ধামত্ম গৃহীত হয়।

 

 

পাতা- ৩

 

আলোচনা

সিদ্ধামত্ম

বাস্তবায়ন

 

উপজেলা মাধ্যমিক শিÿা অফিসার বলেন যে, সম্প্রতি উচ্চ মাধ্যমিক পর্যায়ের পরীÿার্থীদের মধ্যে যোগ্য ছাত্রীদের উপবৃত্তি প্রদান করা হয় । অনেক দিনপর কক্সবাজার  মডেল হাইস্কুলে বিগত ২২/০৪/২০১৩ ইং তারিখ নিয়মিত ম্যানেজিং কমিটি গঠন করা হয়েছে। ২৫/০৪/২০১৩ ইং  তারিখ নির্বাচিত সদস্যদের নিয়ে ১ম সভা আহবান করা হয় ।

 

উপজেলা মাধ্যমিক শিÿা অফিসার

ই্উআরডিও বলেন, বিআরডিবির বিভিন্ন প্রকল্প যেমন, সদাবিক, আবর্তক ঋণ তহবিল ও মহিলা উন্নয়ন বিভাগের কার্যক্রম যথারীতি চলছে। মাঠ কর্মীর অভাবে পলস্নী প্রগতি প্রকল্প ও মুক্তিযোদ্ধা প্রকল্পের কার্যক্রম ব্যহত হচ্ছে। মাঠ কর্মী নিয়োগের ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে। উপজেলা কেন্দ্রিয় সমিতির কার্যক্রম অব্যাহত আছে। সদাবিক পলস্নী প্রগতি ও মুক্তিযোদ্ধা খেলাপী ঋণ আদায় কম হওয়ায় উক্ত টাকা আদায়ে প্রশাসনিক সহয়তা প্রয়োজন।

তিনি বলেন-একটি বাড়ী একটি খামার প্রকল্পে চলতি মাস পর্যমত্ম ২২.২০ লÿ টাকা প্রকল্প ঋণ প্রদান করা হয়েছে। বিতরণকৃত ঋণ হতে কিসিত্ম অনুযায়ী মোট-৯.০০ লÿ টাকা আদায় করা হয়েছে। এ পর্যমত্ম  খসড়া আদায়ের পরিমাণ চলতি বছরে ১২ লÿ টাকা ও ক্রমপুজ্ঞিত সঞ্চয় আদায়ের পরিমাণ ৩০ লÿ টাকা।

পিআরডিবি-২ প্রকল্পে পিএম খালী ইউনিয়নের প্রাথমিক ও উন্নয়ন কাজ অব্যাহত আছে। খুরম্নস্কুল ইউনিয়নে গ্রাম কমিট গঠন সহ অন্যান্য কাজ আরম্ভ  করা হয়েছে।

তিনি  আরোও  বলেন যে, বিআরডিবি-র বতমানে বাসত্মবায়নাধীন ০২টি ইউনিয়নের অতিরিক্ত আরো দুটি ইউনিয়নে পিআরডিপি-০২ প্রকল্প বাসত্মবায়ন প্রক্রিয়াধীন। পিএমখালী  ও খুরম্নস্কুল এর অতিরিক্ত দুটি ইউনিয়ন নির্বাচনের বিষয়ে সভায় আলোচনা করা হয়। 

প্রতিটি প্রকল্পের কাজসমূহ নিয়ম মোতাবেক লÿ্য মাত্রা অর্জনের জন্য কার্যক্রমঅব্যহত রাখতে্ইউআর ডি ও প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন।

 

 

 

 

পিআরডিপি-২ প্রকল্পে অমর্ত্মভূক্ত করার জন্য ঝিলংজা ও জালালাবাদকে মনোনীত করার সিদ্ধামত্ম গৃহীত হয়।

ইউআরডিও

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

ইউআরডিও

উপজেলা যুব উন্নয়ন কর্মকর্তা সভাকে অবহিত করেন, চলতি ২০১৩ সালে প্রাতিষ্ঠানিকভাবে ১৫৬ জন ও অপ্রাতিষ্ঠানিকভাবে ৩,৫৬৬ জন যুবককে প্রশিÿণ দেয়া হয়েছে। এ অর্থ বছরে যুব ঋণ বিতরণের পরিমান- ৮২,০৩,০০০/ টাকা ও আদায় কৃত ঋণের পরিমান ৪৭,৩০,৪২৯/- টাকা এবং আদায়ের হার (চলতি মাস পর্যমত্ম) ৭০%, খেলাপী টাকার পরিমাণ- ১৮,১৩,০৫২/- টাকা। যুব ঋণ গ্রহীতার সংখ্যা- ৪০২ জন ও যুব ক্লাবের সংখ্যা- ২২টি।

 

 

উপজেলা উপ-সহকারী প্রকৌলশী, জনস্বাস্থ্য বলেন, বিগত ১৪/০১/২০১৩ ইং তারিখের ওয়াটসান কমিটির সিদ্ধামত্ম মোতাবেক চলতি অর্থবছরে প্রাপ্ত পানির উৎস সমুহের বরাদ্দ ইউনিয়ন ওয়ারী বিভাজন করা  হয়েছে। কয়েকটি ইউনিয়ন পরিষদ হতে পানির উৎসের তালিকা পাওয়া গেছে এবং কার্যক্রম চলমান রয়েছে। তিনি অতি দ্রম্নত সময়ের মধ্যে বাকী পানির উৎসের স্থান তালিকা প্রেরনের জন্য সভার মাধ্যমে ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যানদের অনুরোধ জানান।

সভায় আলোচনামেত্ম যে সকল ইউনিয়ন পরিষদ হতে এখনো পানির উৎসের স্থান তালিকা জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তর অফিসে জমা প্রদান করেননি তাদেরকে আগামী ০৭ দিনের মধ্যে তালিকা প্রেরণের সিদ্ধামত্ম গৃহীত হয়।

সংশিস্নষ্ট ইউপি চেয়ারম্যান ও উপ-সহঃপ্রকৌশলী (জনস্বাস্থ্য)এবংসদস্য  সচিব, উপজেলা ওয়াটসান কমিটি

উপজেলা সমাজ সেবা কর্মকর্তা সভায় জানান যে, পলস্নী কার্যক্রম ( আরএসএস) খাতে বিনিয়োগ ৩১,৭৬০০০/= মোট আদায় ৩৭,১০,১৫০টাকা আদায়ের হার ৮৭%;পুনঃবিনিয়োগ ১৭,০০,৮০০ টাকা, মোট আদায় ১৬,২৪,৬৭২টাকা , আদায় হার ৮৬%

(খ)এসিড দগ্ধ ও প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের  পুর্নবাসন খাতে বিনিয়োগ ১৪,৭৩,৮০০/- মোট আদায় ১৩,৫০,১২৪/- আদায়ের হার ৮৭%; পুনঃবিনিয়োগ ২৫,৭৫,০০০/- মোট আদায় ১৬,২৪,৬৭২/= আদায়ের হার ৮৬%

(গ)আশ্রয়ন খাতে বিনিযোগ ২১,৮০,০০০/- মোট আদায় ৭০,১৯৪টাকা, আদায়ের হার ০৩%।

০২। বয়স্ক ভাতা খাতে  মোট ভাতাভোগীর  সংখ্যা ৫,৪০৯ জন, অস্বচ্ছল  প্রতিবন্ধী ভাতা খাতে ৬৮০জন এবং বিধবা  ও স্বামী পরিত্যক্ত দুঃস্থ ভাতা খাতে ১,৬০৫ জন। প্রত্যকের মাসিক ভাতার হার ৩০০/- এবং ২০১২-১৩ অর্থ বছরের মার্চ ২০১৩ পর্যমত্ম ভাতা প্রদানের হার ১০০%।

০৩।প্রতিবন্ধী শিÿার্থীদের জন্য শিÿা উপবৃত্তি  খাতে মোট সংখ্যা ২৬ জন এবং ২০১২-১৩ অর্থবছরের মার্চ ,২০১৩ পর্যমত্ম ভাতা প্রদানের হার ১০০%।

০৪। বেসরকারী এতিমখানায় ক্যাপিটেশন  গ্রান্ট প্রাপ্ত এতিমের সংখ্যা  ২৯৬ জন। মাথাপিছু মাসিক হার ১০০০/=

০৫। নিবন্ধিত সংস্থায় এককালীন অনুদানের পরিমাণ ২০১১-১২ অর্থ বছরে ৪০,০০০/-

বিনিয়োগকৃত টাকা ১০০% আদায়ের সিদ্ধামত্ম গৃহীত হয়।

সমাজ সেবা কর্মকর্তা

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

উপজেলা সমবায় কর্মকর্তা সভায় জানান যে, আশ্রয়ন প্রকল্প ফেইজ-১,বড়ছড়া আশ্রয়ন প্রকল্পে আবাস হতে প্রাপ্ত বরাদ্দ ৮,০০০০০/- টাকা, বর্তমান মাস পর্যমত্ম ক্রমপুঞ্জিভুত দাদনের পরিমান ১৩,৪০০০ টাকা এবং আদায়ের পরিমাণ ৬,৫৭,২৪২/- টাকা। আশ্রয়ন ফেইজ-২, খুরম্নশকুল আবাসন প্রকল্পে আবাসন হতে প্রাপ্ত বরাদ্দ ৭,০০,০০০/- টাকা। তন্মধ্যে ১,৪০,৬২৯/- টাকা দাদন করা হয়েছে। ৪,৭১,৩৭১/- টাকা। উক্ত খেলাপী ঋণ আদায় সমেত্মাষজনক পর্যায়ে উন্নীত করার জন্য উপজেলা নির্বাহী অফিসারের সহযোগিতা কামনা করেন।

পন্য ঋণ সংক্রামত্ম: বাংলাদেশ জাতীয় মৎস্যজীবি সমবায় সমিতি লি: এর আওতায় ১৮টি মৎস্যজীবি সমবায় সমিতির মধ্যে পন্য ঋণ হিসাবে ২৬টি বোটের বিপরীতে ৪,৭১,৩৮,১৫০/- টাকা ঋণ দাদন করা হয়। বর্তমান মাস পর্যমত্ম ঋণ আদায়ের পরিমাণ ৫,৫৪,০০০/- টাকা। খেলাপী ঋণ ৪,৬৫,৮৪,১৫০/- টাকা। খেলাপী ঋণের কারনে ১০টি সমিতির বিরম্নদ্ধে সার্টিফিকেট মামলা দায়ের করা হয়েছে।

খেলাপী ঋণ ১০০ঁ% আদায় নিশ্চিত করার সিদ্ধামত্ম গৃহীত হয়।

 

 

        

পাতা- ৪

 

আলোচনা

সিদ্ধামত্ম

বাস্তবায়ন

 

ত্রাণ বিভাগঃ- (ক) উপজেলা প্রকল্প বাসত্মবায়ন কর্মকর্তা বলেন, সম্প্রতি উপজেলা চেয়ারম্যানের অনুপসিত্মতির কারণে সরকারের গৃহিত প্রকল্প যর্থাথভাবে বাসত্মবায়নে দীর্ঘসুত্রিতা দেখা দিয়েছে। তিনি নিয়মিত অফিসে উপস্থিত না থাকায় টিআর/ কাবিখা ও জি.আর চাউল বরাদ্দের ÿÿত্রেও  বাধা পরিলÿÿত হচ্ছে। তাই তিনি উপজেলা চেয়ারম্যান নিয়মিত উপস্থিত না থাকায় বিকল্প কোন ব্যবস্থা গ্রহণ করা যায় কিনা, তৎ বিষয়ে উর্দ্ধতন কর্তৃপÿকে অবহিত করার বিষয়ে সভার দৃষ্টি আকর্ষণ করেন।

খ) তিনি আরো জানান যে, ২০১২-২০১৩ অর্থ বছরে গ্রামীণ অবকাঠামো রক্ষণাবেক্ষণ (টি,আর) এবং গ্রামীণ অবকাঠামো সংস্কার (কাবিখা) কর্মসূচীর আওতায় ১ম পর্যায়ের কাজ সূষ্টুভাবে সম্পন্ন হয়েছে। ২০১২-২০১৩ ইং  আর্থিক সালে অতি দরিদ্রদের জন্য কর্মসংস্থান কর্মসূচীর ১ম পর্যায়ের কাজ সমাপ্ত হয়েছে।

খ) ২০১২-২০১৩ অর্থ বছরে গ্রামীণ অবকাঠামো রক্ষণাবেক্ষণ (টি,আর) কর্মসূচীর এবং গ্রামীণ অবকাঠামো  সংস্কার (কাবিখা) কর্মসূচীর ২য়পর্যায় প্রকল্পের কাজ চলমান আছে। প্রকল্পের কাজের অগ্রগতি নিম্নরূপ।

খাত

প্রকল্প সংখ্যা

বরাদ্দের পরিমাণ

ছাড়কৃত গম/চালের পরিমান

অগ্রগতি (%)

টি,আর,সাধারণ

৭৩টি

১৩৭.৫২৬৬ মেঃটন

১৩৭.৫২৬৬ মেঃটন

১০০%

টি,আর,সাধারণ

১৫টি

৩৪.৩৮৭০ মেঃটন

৩১.৮৮৭০ মেঃটন

৯২.৭৩%

টি,আর, বিশেষ

১৪৩টি

৩০১.০০ মেঃটন

৩০১.০০ মেঃ টন

১০০%

 

গ্রামীণ অবকাঠামো সংস্কার (কাবিখা)ঃ

খাত

প্রকল্প সংখ্যা

বরাদ্দের পরিমাণ

ছাড়কৃত গম/চালের পরিমান

অগ্রগতি (%)

কাবিখা সাধারণ

১৭টি

১৪৬.৫৮৮৩ মেঃটন গম

১২৭.০৬৬৩ মেঃটন গম

৯০%

কাবিখা বিশেষ

৩২টি

২৩৩.০০ মেঃটন চাল

২১১.৫০০ মেঃ টন

৯৫%

 

(গ) সেতু কালভার্ট নির্মাণঃ ২০১২-২০১৩ অর্থ বছরে ‘‘গ্রামীণ রাসত্মায় ছোট ছোট (১২ মিঃ দৈর্ঘ্য পর্যন্ত সেতু/ কালভার্ট নির্মাণ (৩য় পর্যায়) ’’ শীর্ষক প্রকল্পের কাজ প্রায় সমাপ্ত হয়েছে। প্রকল্পের কাজের অগ্রগতি নিম্নরূপ।

প্রকল্পের নাম

ইউপি

দৈর্ঘ্য

বরাদ্দের পরিমাণ

ছাড়কৃত অর্থে পরিমাণ

অগ্রগতি %

আহম্মদের বাড়ী সংলগ্ন খুরুশকুল কুলিয়ার ছড়ার উপর ব্রীজ নির্মাণ।

খুরুশকুল

৩৬র্র্র্-০র্

২৪,১৪,৫৩২/-

--

৯০%

কানিয়ার ছড়া ঈদগাহ খালের উপর ব্রীজ নির্মাণ

ঈদগাহ

৩৬র্-০র্র্

১৮,৮৪,৭৯৯/-

১০,০০,০০০

১০০%

 

ক) আলোচনামেত্ম অফিসের আসবাবপত্র ক্রয়ের নিমিত্ত উপজেলা রাজস্ব তহবিল হতে ৫০,০০০/- (পঞ্চাশ হাজার) টাকা উত্তোলন করার এবং আনুষাঙ্গিক ও পানির পাম্প মেরামত কাজের ব্যয়িত ৪,৮০০/- টাকা পরিশোধের সিদ্ধামত্ম গৃহীত হয়।

খ) সভায় আলোচনামেত্ম উপজেলা পরিষদ কমপেস্নক্স এর চতুপার্শ্বে ও মূল ফটকে সিকিউরিটি লাইট লাগানোর ৬০,৪৫৫/- টাকার প্রাক্কলন সভায় অনুমোদিত হয় এবং উপজেলা রাজস্ব তহবিল এ ব্যয় মিটানোর সিদ্ধামত্ম গৃহীত হয়।

গ) সভায় আলোচনামেত্ম চলমান প্রকল্পের কাজ যথা সময়ে সুষ্টুভাবে সম্পন্ন করার জন্য উপজেলা প্রকল্প বাসত্মবায়ন কর্মকর্তা এবং সংশিস্নষ্ট ইউ,পি চেয়ারম্যানগণকে  অনুরোধ জানিয়ে পত্র প্রেরণের  সিদ্ধামত্ম গৃহীত হয়।

সভায় আলোচনামেত্ম  ব্রীজ নির্মাণের কাজ সমাপ্ত করার ব্যাপারে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য উপজেলা প্রকল্প বাসত্মবায়ন কর্মকর্তা প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন

উপজেলা নির্বাহী অফিসার

সদর

ঘ)  ঝুuঁকহ্রা্স কর্মসূচীর ঋণ আদায়ঃ- ২০০৫-২০০৬ অর্থ বছরে ঝুঁকি হ্রা্স কর্মসূচীর আওতায় বিভিন্ন উন্নয়নে বিতরণকৃত সমুদয় ঋণের অর্থ আদায় করে উপজেলা নির্বাহী অফিসার কক্সবাজার সদর বরাবরে ক্রস চেকের মাধ্যমে ফেরৎ প্রদান করার জন্য একাধিক বার অনুরোধ জানানো হয়। কিন্তু ঋণের অর্থ আদায়ের কোন অগ্রগতি পাওয়া যায়নি।

 

ঘ) সভায় আলোচনামেত্ম ঝুঁকি হ্রা্স কর্মসূচীর ঋণের টাকা আদায়ের বিষয়টি তরান্বিত করার জন্য সংশিস্নষ্ট ইউ,পি, চেয়ারম্যানগণকে অনুরোধ জানিয়ে পত্র প্রেরণের সিদ্ধামত্ম গৃহীত হয়।

 

ইসলামপুর ইউপি চেয়ারম্যান বলেন, উপজেলা চেয়ারম্যানের অনিয়মিত দপ্তরে উপসিত্মতির কারণে সরকার প্রদত্ত বিভিন্ন প্রকল্পের উন্নয়ন কাজে বাধা সৃষ্টি হচ্ছে। তিনি বলেন, উপজেলা চেয়ারম্যান নিয়মিত উপস্থিত না থাকায় আমাদের কার্যক্রমে দীর্ঘসুত্রিতা দেখা দিয়েছে। তাই এ বিষয়ে বিকল্প কোন ব্যবস্থা গ্রহণ করতে সভার দৃষ্টি আকর্ষণ করেন।

চৌফলদন্ডী ইউপি চেয়ারম্যান বলেন, উপজেলা চেয়ারম্যানের অনুপসিত্মতির কারণে  আমাদের চলমান প্রকল্প সমূহ বাসত্মবায়নে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি হচ্ছে। প্রকল্পের আর্থিক কার্যক্রমেও বাধা সৃষ্টি হচ্ছে। তাই তিনি উপজেলা চেয়ারম্যান নিয়মিত উপস্থিত না থাকায় বিকল্প কোন ব্যবস্থা গ্রহণ করতে উর্দ্ধতন কর্তৃপÿকে অবহিত করার বিষয়ে সভার দৃষ্টি আকর্ষণ করেন।

ঈদগাও ইউপি চেয়ারম্যান বলেন, উপজেলা চেয়ারম্যান মহোদয়ের অনুপসিত্মতির ফলে হাট-বাজার, এডিপি ও ১% এর অর্থ দ্বারা গৃহিত প্রকল্পের কার্যক্রম যথাসময়ে বাসত্মবায়নে বাধা সৃষ্টি হচ্ছে। দাপ্তরিক কার্যক্রমেও বিঘ্ন সৃষ্টি হচ্ছে। তাই তিনি উপজেলা চেয়ারম্যানের বিকল্প কোন ব্যবস্থা গ্রহণ করতে অত্র সভার মাধ্যমে উর্দ্ধতন কর্তৃপÿÿর দৃষ্টি আকর্ষণ করেন।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার বলেন, সভায় অনুমোদিত হলে উপজেলা চেয়ারম্যান তাঁর অফিসে অনিয়মিত উপস্থিতির বিষয়টির জটিলতা নিরসনকল্পে উপজেলা পরিষদ আইন- ২০০৯ এর বিধান মোতাবেক পরবর্তী নির্দেশনা ও সিদ্ধামেত্মর জন্য উর্দ্ধতন কর্তৃপÿÿর নিকট পত্র প্রেরণ করা যেতে পারে মর্মে সভাকে অবহিত করেন।

 

উপজেলা চেয়ারম্যান জনাব সলিম উলস্নাহ বাহাদুর পরপর দুটি উপজেলা মাসিক সভায় অনুপস্থিত থাকায় প্যানেল চেয়ারম্যান হিসেবে জনাব জনাব নাসিমা আক্তার কে উপজেলা চেয়ারম্যানের দায়িত্ব পালনসহ আর্থিক ÿমতা প্রদানের বিষয়ে সদয় নির্দেশনা ও  সিদ্ধামেত্মর জন্য উর্দ্ধতন কর্তৃপÿÿর বরাবরে পত্র প্রেরণের সিদ্ধামত্ম গৃহীত হয়।

 

 

উপজেলা নির্বাহী অফিসার

 

ইউপি চেয়ারম্যান সকল

 

 

     

 

পাতা- ৫

 

আলোচনা

সিদ্ধামত্ম

বাস্তবায়ন

বিবিধ: উপজেলা নির্বাহী অফিসার বলেন, উপজেলা চেয়ারম্যান কার্যালয়ের অফিস কÿÿ ব্যবহৃত পুরাতন ফ্যাক্স মেশিনটি নষ্ট হওয়ায় সরকারি জরম্নরী চিটিপত্র আদান প্রদানে ব্যাঘত সৃষ্টি হচ্ছে। তাই উপজেলা রাজস্ব তহবিল ব্যবহার নির্দেশিকার (চ) নং অনুচ্ছেদের অনুবলে জরম্নরী ভিত্তিতে একটি ১৩,৫০০/- টাকা মুল্যের ফ্যাক্স মেশিন করা হয়েছে^। 

 

উপজেলা নির্বাহী অফিসার জনপ্রতিনিধিদের উদ্দেশ্যে বলেন, উপজেলা নির্বাহী অফিসার বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তাদের উদ্দেশ্যে বলেন, আমরা যারা মাঠ পর্যায়ে সরকারের লক্ষ্য বাসত্মবায়নে কাজ করে যাচ্ছি তাদেরকে সংশ্লিষ্ট সেক্টরের ক্ষেত্রে যথারীতি বিধি অনুসরণ পূর্বক সরকারের লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য বাসত্মবায়ন প্রক্রিয়ায় গতিশীলতা বৃদ্ধি প্রয়োজন মর্মে সভায় অভিমত ব্যক্ত করেন।

 

উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান ও সভাপতি বলেন কিছু কিছু কাজ সম্পাদন করে আমরা এলাকায় প্রশংসিত হয়েছি। তিনি বলেন সরকারী নিয়ম অনুযায়ী উন্নয়ন মূলক প্রকল্প গ্রহণ/ বাসত্মবায়নে সকলকে আরো আমত্মরিক হওয়ার আহবান জানান। তাছাড়াও গৃহীত বিভিন্ন প্রকল্পের কাজ যথাযথভাবে বাসত্মবায়নে সংশিস্নষ্ট সকলকে অনুরোধ জানান।

সভায় আলোচনামেত্ম উপজেলা  পরিষদে ব্যবহ্নত  ফ্যাক্স মেশিন ক্রয়ের সিদ্ধামত্ম গৃহীত হয়।

 

উপজেলা নির্বাহী অফিসার

 

সভাপতি সকল বিভাগকে তাদের কার্যক্রম/ পদক্ষেপের বিষয়ে প্রস্তাব উপস্থাপনের জন্য ধন্যবাদ জানান।  সভায় আর কোন আলোচ্য বিষয় না থাকায় সভাপতি উপস্থিত সকলকে ধন্যবাদ জানিয়ে সভার সমাপ্তি ঘোষণা করেন। 

 

 

 ( নাসিমা আক্তার )

মহিলা  ভাইস চেয়ারম্যান

সদর উপজেলা পরিষদ

সভাপতি

উপজেলা উন্নয়ন সমন্বয় কমিটি

সদর-কক্সবাজার

 

স্মারক নং-০৫.২০.২২০০.২২২৪.০৬.০২.২০১২-                                                                            তারিখঃ  ০৩/০৬/২০১৩ খ্রিঃ

অনুলিপিঃ- সদয় জ্ঞাতাথে/র্ কার্যার্থেঃ  

০১।        মাননীয় সংসদ সদস্য-২৯৬, কক্সবাজার-৩ (সদর-রামু)।

০২।       মন্ত্রিপরিষদ সচিব,মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ ,বাংলাদেশ সচিবালয়,ঢাকা।

০৩।       সচিব, স্থানীয় সরকার বিভাগ, স্থানীয় সরকার পল­ী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়, বাংলাদেশ সচিবালয়, ঢাকা।

০৪।        কমিশনার, চট্রগ্রাম বিভাগ, চট্রগ্রাম।

০৫।       জেলা প্রশাসক, কক্সবাজার।

০৬।       প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা, জেলা পরিষদ, কক্সবাজার।

০৭।        পুলিশ সুপার, কক্সবাজার/ সিভিল সার্জন, কক্সবাজার/ নির্বাহী প্রকৌশলী, সড়ক ও জনপদ বিভাগ, কক্সবাজার।

০৮।       বিভাগীয় বন কর্মকর্তা ,কক্সবাজার বন বিভাগ (উত্তর,দক্ষিন) কক্সবাজার।

০৯।       অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক), কক্সবাজার।

১০।        ভাইস চেয়ারম্যান (পুরুষ/মহিলা), উপজেলা পরিষদ, সদর, কক্সবাজার।

১১।        উপজেলা.........................................অফিসার (সকল) কক্সবাজার।

১২।        ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা,কক্সবাজার থানা।

১৩।       চেয়ারম্যান ................................(সকল) ইউপি।

                                                                                

                                                                                                                                   উপজেলা নির্বাহী অফিসার

                                                                                                                                                    সদর, কক্সবাজার।